1. admin@narsingdirkanthosor.com : admin :
সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:২০ পূর্বাহ্ন

বেলাবতে তরুণদের মাঝে দেশপ্রেম বাড়াচ্ছে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু চর্চা কেন্দ্র

আলমগীর পাঠান
  • প্রকাশিতঃ শনিবার, ৯ মার্চ, ২০২৪
  • ৮৮ বার

আলমগীর পাঠান : বাঙালি জাতির মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ, অধিকার আদায়ে আন্দোলন, সংগ্রাম এবং অসামান্য কর্মজীবন প্রত্যন্ত এলাকায় মানুষের মাঝে তুলে ধরতে বেলাবতে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু চর্চা কেন্দ্রের মাধ্যমে সবার মাঝে দেশপ্রেম বাড়াচ্ছেন তরুণ ভাস্কর শিল্পী অলি মাহমুদ।

চর্চা কেন্দ্রটিতে মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন বই, স্মৃতি বিজরীত দূর্লভ ছবি ও বঙ্গবন্ধুর অসামান্য কর্মজীবনের চিত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমে সবার মাঝে তুলে ধরেছেন। যা ইতিমধ্যেই সবার মাঝে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। যা প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের মাঝে বাঙ্গালী জাতির মুক্তির সংগ্রামের ইতিহাস নতুন এখানটায় ফুটে উঠেছে। এই ব্যাতিক্রমী উদ্যোগটি নিয়েছেন বেলাব উপজেলার তরুণ ভাস্কর্য্য শিল্পী ভাস্কর অলি মাহমুদের নিজস্ব অর্থায়নে গড়ে তুলা এই চর্চা কেন্দ্রটির মাধ্যমে নতুন প্রজম্ম মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে প্রতিদিন ওই দুরদূরান্ত থেকে আসা অনেক দর্শনার্থী এসব প্রতিচ্ছবি দেখতে ছুটে আসছেন এই চর্চা কেন্দ্রটিতে।

নরসিংদীর বেলাব উপজেলার আমলাব ইউনিয়নের পাহাড় উজিলাব বাজারের সংলগ্ন নির্মিত মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু চর্চা কেন্দ্রটি যেন মহান মুক্তিযুদ্ধ আর বাঙ্গালি জাতীর মুক্তির মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কর্মময় জীবনের এক জীবন্ত প্রতিচ্ছবি যেখানে পুরো দেয়াল জুড়ে বড়বড় ছবির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর অসামান্য কর্মজীবনের চিত্র ও বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বইটির স্লোক গাঁতা বাণী গুলো ফুটিয়ে তুলা হয়েছে। একই সাথে ঘরে রাখা হয়েছে স্বাধীনতা যুদ্ধের স্মৃতি বিজরীত বিভিন্ন দূর্লভ ছবি। ঘরে পাঠাগারে রাখা মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন বই।

বেলাব উপজেলা সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন আঙ্গুর বলেন, আমরা ৭১ সালে যুদ্ধ করেছিলাম বঙ্গবন্ধুর ডাকে। আমি ৬৯ এর গণ আন্দোলনের রাজপথের সৈনিক। আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের মূল হৃদয়ের যে আবেগ আমরা চাই বঙ্গবন্ধু চির অম্লান হয়ে থাকুক। আমরা চাই স্বাধীনতা চির উন্নত থাকুক। এই ধরণের মুক্তিযোদ্ধা চর্চা কেন্দ্র এবং বঙ্গবন্ধুকে জানার যে উদ্যোগ নিয়েছে ভাস্কর অলি মাহমুদ। এই বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযোদ্ধা চর্চা কেন্দ্রের মাধ্যমে নতুন প্রজন্ম বঙ্গবন্ধু, স্বাধীনতার সম্পর্কে জানতে পারবে।

সাবেক প্রধান শিক্ষক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক মাষ্টার বলেন, বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ ৬৬ এর ঐতিহাসিক ছয় দফা, ঊনসত্তরের গণঅভ্যূত্থান ও জাতির গৌরবোজ্জ্বল, একাত্তরে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে কাঙ্খিত স্বাধীনতা অর্জনের প্রধান নায়ক হিসেবে বঙ্গবন্ধুর অবদানের চিত্র গুলো দেখে মুগ্ধ অনেকে। প্রতিদিনই স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ এই চর্চা কেন্দ্রে এসে মহান স্বাধীনাতার স্মতিবিজরীত দৃশ্য গুলো উপলব্দী করছে। যা থেকে মুক্তিযুদ্ধের সময়কালের অনেক অজানা ইতিহাস জানতে পারছে তারা।

মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু চর্চা কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ভাস্কর অলি মাহমুদ বলেন, বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ একই সূত্রে গাঁথা। একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের প্রতি দুর্বলতা ও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে প্রান্তিক জনপদে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ চর্চা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করেছি। বর্তমান ও আগামী প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ সম্মন্ধে সঠিক তথ্য জানানোর জন্য এ কার্যক্রম চালু করেছি।

আরো খবর..
© নরসিংদীর কন্ঠস্বর
Developed By Bongshai IT