1. admin@narsingdirkanthosor.com : admin :
শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ০২:৩২ পূর্বাহ্ন

পলাশে ইউএনও’র উদ্যোগে জনপ্রিয় হলো ভাষাচর্চা ক্লাব

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • প্রকাশিতঃ বুধবার, ১৭ মে, ২০২৩
  • ১৩০ বার

নিজস্ব প্রতিবেদক : নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় ভাষাচর্চা ক্লাব বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বাংলা ভাষায় শুদ্বোচ্চারণ ও ইংরেজিতে কথোপকথন শিখতে এখানে শিক্ষার্থীদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। নরসিংদীর জেলার পলাশ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ রবিউল আলমের উদ্যোগে উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে ছেলেমেয়েরা যাতে নিজের ভাষার মাধুর্য উপলব্ধি ও শুব্ধ উচ্চারণ শেখে এবং আন্তর্জাতিক ভাষা ইংরেজিতে দক্ষ হয়ে উঠতে পারে সে লক্ষ্যে ভাষাচর্চার জন্য ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাব চালু করেন।

প্রতি বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পর্যায়ক্রমে শতাধিক শিক্ষার্থী এ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাবে অংশ নেয়। যা দিন দিন এ সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। শিক্ষার্থীদের আগ্রহ বাড়ছে এ ভাষা চর্চা ক্লাবে অংশ নেয়ার। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রবিউল আলম পর্ষায়ক্রমে প্রায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিজে ক্লাস নেয়ার পাশাপাশি স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বাংলা ও ইংরেজি শিক্ষকরা ক্লাস নিচ্ছেন।

পলাশ থানা মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাবাসসুম, শশি, সেজুতি আক্তার সৃষ্টি ও উর্মী দেবনাথ বলেন, আগে আমরা সবার সামনে কবিতা, আবৃতি ও উপস্থাপনা করতে ভয় পেতাম এবং শুদ্ধ ভাবে বলতে পারতাম না। কিন্ত এ ভাষাচর্চা ক্লাবের মাধ্যেমে এখন আমাদের আর সমস্যা হচ্ছে না। আমরা বাংলা শুদ্ধ ভাষার পাশাপাশি ইংরেজিতেও এখন কথা বলতে পারি।

ঘোড়াশাল নজরুল বিন নুর মহসিন গালর্স স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ রিনা নাসরিন জানান, ভাষাচর্চা ক্লাবের ইংরেজি চর্চায় অংশ নিয়ে তারা এখন মঞ্চে দাঁড়িয়ে ইংরেজিতে কথা বলা শিখছেন। এতে মাঝে মধ্যে ভুল হচ্ছে। তারপরও শুদ্ধভাবে বাংলা ও ইংরেজি চর্চায় দারুণভাবে উৎসাহিত হচ্ছেন তারা।

পলাশ থানা মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বরুণ চন্দ্র দাস বলেন, ভাষা সাহিত্য ক্লাবের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের কথা বলার দক্ষতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সাবলীল ভাবে বিতর্ক প্রতিযোগিতা, বক্তব্য প্রদান, সৃজনশীল কর্ম তৈরির প্রক্রিয়াও বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ বিদ্যালয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ভাষাচর্চা ক্লাব উদ্বোধন করার পর থেকে শিক্ষার্থীদের কাছে দিন দিন এ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাব জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। অভিভাবকদেরও ভাষাচর্চা ক্লাবে তাদের সন্তানদের ভর্তি করাতে আগ্রহ বেড়েছে।

এ ব্যাপারে পলাশ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রবিউল আলম বলেন, ছাত্র-ছাত্রীদের জড়তা কাটানো ও বিদ্যালয়মুখী করা এবং স্মার্ট পলাশ বিনির্মাণে লক্ষ্যে গতবছরের ডিসেম্বর মাসে প্রতিটি বিদ্যালয়ে ল্যাংগুয়েজ ক্লাব চালু করি। বর্তমানে ১০৪ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ কার্যক্রম চালু রয়েছে। স্মার্ট জিপিএস হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের মাধ্যমে প্রাত্যহিক সমাবেশ ও ল্যাংগুয়েজ ক্লাব কার্যক্রম তদারকি করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, ৩০টি প্রতিষ্ঠানে বিতর্ক ক্লাব কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ইউএনও কর্তৃক পরিচালিত “নো ইউর পটেনশিয়াল” নামক সেশনটির কার্যক্রম এখনো চলমান রয়েছে যা ছাত্র-ছাত্রীদের নিজেদের সক্ষমতাকে জানতে সাহায্য করছে এবং আরো বেশি আত্মপ্রত্যয়ী করছে। শিল্পসমৃদ্ধ এ পলাশকে এই ছাত্র-ছাত্রীরাই স্মার্ট সিটিজেন হিসেবে গড়ে উঠে স্মার্ট পলাশে রুপান্তর করবে এ আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

আরো খবর..
© নরসিংদীর কন্ঠস্বর
Developed By Bongshai IT