1. admin@narsingdirkanthosor.com : admin :
সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন

নবীনগরে জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের সংবর্ধনা ও পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত

মো : আলমগীর হোসেন, নবীনগর প্রতিনিধি :
  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ১০৬ বার

মো : আলমগীর হোসেন, নবীনগর প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার লাউর ফতেপুরে অবস্থিত ব্যারিষ্টার জাকির আহাম্মদ কলেজ থেকে এবছর জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ৮৮ জন মেধাবী শিক্ষার্থীদের আজ কলেজ মিলনায়তনে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে।

এ উপলক্ষে কলেজ প্রাঙ্গণে এক নান্দনিক পিঠা উৎসবেরও আয়োজন করা হয়। পিঠা উৎসবে শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে মোট ২১ দৃষ্টিনন্দন স্টলে নানা বাহারী আইটেমে পিঠার যেন হাঁট বসানো হয়। এতে অত্র কলেজ ছাড়াও আশপাশের বিভিন্ন স্থান থেকে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শত শত দর্শনার্থীদের পীঠা উৎসবে প্রচন্ড ভীড় জমতে দেখা যায়।

বেলা ১১টায় প্রধান অতিথি হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে ফিতা কেটে পিঠা উৎসবের উদ্বোধন করেন কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. জামাল নাছের। এ সময় তাঁর পাশে কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ব্যারিষ্টার জাকির আহাম্মদ সহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

পরে প্রধান অতিথি আমন্ত্রিত অতিথিদের নিয়ে কলেজ ক্যাম্পাসে ২১ টি পিঠার স্টল ঘুরেঘুরে পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি বিভিন্ন ষ্টলে পিঠার গুণগত মান ও বৈচিত্রময় নানা পিঠা দেখে আয়োজকদের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

পরে দুপুর ১২টায় কলেজের মিলনায়তনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় অত্র কলেজ থেকে জিপিএ-৫ প্রাওয়া ৮৮জন শিক্ষার্থীদেরকে ঘটা করে সংবর্ধনা দেয়া হয়। জাতীয় সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সাবেক ছাত্রনেতা ও বর্তমানন আওয়ামীলীগ নেতা ব্যারিষ্টার জাকির আহাম্মদ।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুমিল্লা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. জামাল নাছের তাঁর দীর্ঘ বক্তব্যে শিক্ষার্থীদের উদ্যেশ্যে বলেন, শুধু জিপিএ-৫ পেলেই চলবে না, প্রতিটি শিক্ষার্থীকে একজন ‘ভালো মানুষ’ হিসেবেও গড়ে তুলতে হবে। পাশাপাশি এদেশের প্রকৃত ইতিহাস জানাতে হবে। জানাতে হবে, এ দেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কিভাবে এ দেশকে স্বাধীন করেছেন, সেই রক্তাক্ত ত্যাগ তিতিক্ষার ইতিহাসও।’

এ সময় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন নবীনগরের এসি ল্যান্ড মাহমুদা জাহান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মোকাররম হোসেন, ব্যারিষ্টার জাকির আহাম্মদ কলেজের অধ্যক্ষ ইকবাল হোসেন, সাবেক অধ্যক্ষ মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আবদুল কাইয়ুম, দৈনিক বাংলা ৭১ এর বিশেষ প্রতিনিধি, সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু,

লাউর ফতেপুর ইউপির চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম, স্থানীয় দুটি উচ্চ বিদ্যালয়ের দুই প্রধান শিক্ষক শাহজাহান কবীর (বয়েজ) প্রধান শিক্ষক আল আমীন খান (গার্লস), শিক্ষার্খী ইস্পাত আহাম্মদ প্রমুখ।

বক্তারা শিক্ষা সাহিত্য সংস্কৃতির পাদপীঠ খ্যাত এই নবীনগরের প্রতিটি শিক্ষার্থীকে লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধূলা, সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড, আচার আচরণ, বড়দের শ্রদ্ধা করা, ছোটদেরকে স্নেহ করাসহ বিভিন্ন সামাজিক ও পারিবারিক শিক্ষায়ও গড়ে তোলার জন্য শিক্ষকমন্ডলীসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান।

আরো খবর..
© নরসিংদীর কন্ঠস্বর
Developed By Bongshai IT