1. admin@narsingdirkanthosor.com : admin :
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন

নরসিংদীর আমদিয়ায় স্বামীর ঘর থেকে স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ৩ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৩৫৯ বার

নিজস্ব প্রতিবেদক : নরসিংদীর সদর উপজেলার মাধবদীতে সাবিনা (৩২) নামে তিন সন্তানের জননীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় উপজেলার আমদিয়া ইউনিয়নের বৈলাইন গ্রামের স্বামীর ঘর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত সাবিনা নরসিংদীর পলাশ উপজেলার চরসিন্দুর ইউনিয়নের সুলতানপুর এলাকার মোঃ নুরুজ্জামান মৃধা’র মেয়ে এবং আমদিয়া ইউনিয়নের বৈলাইন গ্রামের মুসলিম এর ছেলে মাজহারুল হক হিমেলের স্ত্রী।

নিহতের শাশুড়ী ও স্থানীয়রা জানায়, আজ মঙ্গলবার ভোরে ফজরের নামাজ পড়তে যায় নিহতের স্বামী সিএনজি চালক হিমেল। তিনি নামাজ পড়া শেষে বাড়ি ফিরে এসে রুমের দরজা বন্ধ দেখে সাবিনাকে ডাকার পরেও কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে জানালা খুলে সাবিনাকে গলায় ফাঁস দেওয়া ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। পরে তার স্বামী গলায় ফাঁস দেওয়া ওড়না জানালা দিয়ে কেটে দিলে সাবিনার নিথরদেহ মাটিতে পড়ে যায়। এ ঘটনার খবর পেয়ে বেলা ১১ টার দিকে থানা পুলিশ এসে রুমের দরজার লক ভেঙে মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহত গৃহবধূ সাবিনার বোন আকলিমা জানায়, সাবিনাকে রেখে তার স্বামী হিমেল আরো একটি বিয়ে করেন। তারপর থেকেই শুরু হয় পারিবারিক কলহ। সাংসারিক টানাপোড়ায় সাবিনা প্রবাসে চলে যান। সেখানে দুই বছর থেকে দূর্ঘটনায় পড়ে চলে আসেন দেশে। পরে স্বামী হিমেলকে সিএনজি ক্রয় করে দেন সাবিনা।

কিন্তু তার স্বামী দ্বিতীয় স্ত্রীর সাথে যোগাযোগ রাখা এবং সিএনজি বিক্রি করে দেওয়ায় বেশ কিছু দিন যাবত সাবিনা ও তার স্বামীর মধ্যে ঝগড়াঝাটি চলে আসছিল।

নিহতের বোন আকলিমা আরো জানায়, সাবিনা তাকে ফোনে জানায়, তার স্বামী হিমেল সাবিনাকে শারিরীকভাবে মারধর করছে সে আর বাঁচতে চায় না।

মাধবদী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) তানভীর আহমেদ জানায়, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পরবর্তী আইনী ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

আরো খবর..
© নরসিংদীর কন্ঠস্বর
Developed By Bongshai IT