1. admin@narsingdirkanthosor.com : admin :
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:০৩ অপরাহ্ন

বেলাবতে অনিয়মের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

আলমগীর পাঠান | নরসিংদীর কন্ঠস্বর :
  • প্রকাশিতঃ শনিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২২
  • ১৬৮ বার

আলমগীর পাঠান, নিজস্ব প্রতিবেদক : বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে বেলাব উপজেলার ধলির পাড় উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কর্মচারী নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করেছে জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস। গত বৃহস্পতিবার বিকালে পাওয়া জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার গৌতম চন্দ্র মিত্রের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞাপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তাড়িগড়ি করে পছন্দের প্রার্থীকে নিয়োগ দিতে বিভিন্ন অনিয়মের পন্থা অবলম্বন করেন নিয়োগ কমিটি। আর এসব অনিয়মের অভিযোগ এনে গত ১৮ অক্টোবর স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ আব্দুল হালিম মিয়া জেলা শিক্ষা অফিস বরাবর নিয়োগ স্থগিত চেয়ে একটি লিখিত আবেদন করেন। সে আবেদনের প্রেক্ষিতে জেলা শিক্ষা অফিস এ নিয়োগ কার্যক্রম স্থগিত করেন।

অপর দিকে সিনিয়র শিক্ষককে বাদ দিয়ে বিধি বহিঃভূত এবং এমপিও নীতিমালা ২০১১ এর ১৩ তোয়াক্কা না করে জুনিয়র সহকারী শিক্ষক মোঃ উসমান গনিকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেয়ায় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে আরেকটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মোঃ যোবায়েত হোসেন।

অভিযোগ পত্রে জানা যায়, যোবায়েত হোসেন গত ১৫ ডিসেম্বর ১৯৯২ সালে অত্র বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগপ্রাপ্ত হোন। অন্যদিকে ৬ বছর পর উসমান গণিকে নিয়োগ দেয়া হয়। সে হিসাবে সহকারী শিক্ষক যোবায়েত হোসেনকে সিনিয়র হওয়ায় বিধি মোতাবেক ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেয়ার কথা। কিন্তু বিদ্যালয়ের জুনিয়র শিক্ষক মাওলানা উসমান গণিকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেয় পরিচালনা কমিটি। যা সম্পূর্ণ বে-আইনী।

অভিভাবক প্রতিনিধি মোঃ সাত্তার মিয়া অভিযোগ করেন, আমাকে ম্যানেজিং কমিটির সর্বসম্মতিক্রমে নিয়োগ কমিটির সদস্য নির্বাচন করেন। কিন্তু পরিচালনা কমিটির সভাপতি রহস্যজনক কারনে আমাকে বাদ দিয়ে একক সিদ্ধান্তে
কাজী মাজহারুল ইসলাম নামে আরেকজনকে নিয়োগ কমিটির সদস্য করেন।

বর্তমান ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বে থাকা উসমান গণি বলেন,আমাকে দায়িত্ব দিয়েছে ঠিকই কিন্তু এ পর্যন্ত কোথাও আমি কোন সই স্বাক্ষর দেইনি। এসময় তিনি ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হওয়ার কোন রেজুলেশান দেখাতে পারেনি।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো মনিরুজ্জামান ভূঁইয়া জাহাঙ্গীর বলেন, নিয়োগ প্রক্রিয়ায় কোনো অনিয়ম হয়নি।

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা গৌতম চন্দ্র মিত্র বলেল, বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে স্থানীয় মেম্বার মোঃ আঃ হালিমের আবেদনের প্রেক্ষিতে নিয়োগ কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। এ বিষয়ে পরবর্তীতে জানানো হবে।

আরো খবর..
© নরসিংদীর কন্ঠস্বর
Developed By Bongshai IT